বাংলাবান্ধায় দুদকের অভিযান বন্দরে ঘুষ লেনদেন, কনস্টেবল প্রত্যাহার

  • প্রকাশিত: May 16, 2019
  • ক্যাটাগরি :

মোঃ বাবুল হোসাইন, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে ভারতগামী যাত্রীদের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুই ঘণ্টার অভিযানে ভারতগামী এক যাত্রীর কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণকালে ইমিগ্রেশন পুলিশের এক কনস্টেবলকে হাতেনাতে আটক করেছে দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম। দুদকের জনসংযোগ দপ্তর এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় পঞ্চগড় পুলিশ সুপার দপ্তর থেকে মো. দুলাল হোসেন (২১৬) নামের ওই কনস্টেবলকে প্রত্যাহার করা হয়েছে জানা গেছে। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ দুদকের টিম আশ্বাস দিয়েছে। দুদক জানায়, অভিযোগ ছিল ভারতগামী প্রত্যেক যাত্রীর কাছ পাসপোর্ট প্রতি ১০০ থেকে ২০০ টাকা নেয় ইমেগ্রেশন পুলিশ সংশ্লিষ্টরা। তারা সাদা পোশাকে ওই টাকা গ্রহণ করে বলে দুদকের হটলাইনে অভিযোগ করা হয়।

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে দুদক। অভিযানে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। অভিযানকালে মো. দুলাল হোসেন (২১৬) নামের কনস্টেবল পদমর্যাদার ইমিগ্রেশন পুলিশের সদস্যকে টাকা গ্রহণকালে হাতেনাতে আটক করা হয়। তাকে ভারতগামী যাত্রীর কাছ থেকে ২০০ গ্রহণকালে আটক করে দুদক টিম। দুদকের উপপরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে। অভিযান শেষে বিস্তারিত প্রতিবেদন দুদকের প্রধান কার্যালয়ে পাঠানো হবে বলে টিম সূত্রে জানা যায়।


অপরাধ