বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে বেষ্টনী খুলে দিলেই স্বাগত জানায় ভাল্লুক

  • প্রকাশিত: June 17, 2019
  • ক্যাটাগরি :

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিব সাফারী পার্কে দেশী বিদেশী বন্যপ্রাণীর অভয়ারণ্। উন্মুক্ত পরিবেশে  হিংস্র বন্যপ্রাণীর অবাধ বিচরণ রয়েছে এ পার্কেই।

বাঘ, সিংহের পাশাপাশি রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার জিরাফ, জেব্রা, ভাল্লুকসহ বিভিন্ন জাতের দেশী-বিদেশী পাখি ব্যাপক সমারোহ এ পার্কে। সাফারী পার্কটি দক্ষিণ এশীয় মডেল বিশেষ করে থাইল্যান্ডের সাফারী ওয়ার্ল্ড ও ইন্দোনেশিয়ার বালি সাফারী পার্কের কতিপয় ধারণা সন্নিবেশিত করে স্থাপন করা হয়েছে।

রাজধানী ঢাকার খুব কাছে পার্কটির অবস্থান হওয়ায় ঈদসহ বিভিন্ন সরকারী বন্ধের ছুটিতে দর্শনার্থীদের আনন্দের কমতি থাকে না। এবারের ঈদুল ফিতরের ছুটিতে সাফারী পার্কে আসা দর্শনার্থীদের বিনোদন বাড়িয়েছে ভাল্লুক। নির্দেশনা পেলেই দর্শনার্থীদের জন্য ভাল্লুক নিজেই তার বেষ্টনীর ফটক খুলে দিয়ে স্বাগত জানাতে গেছে।

পার্কের ট্যুরিষ্ট গার্ড মো. হাসান জানান, বেষ্টনীর গেট সবসময়ই তালাবদ্ধ অবস্থায় থাকে। ট্যুরিষ্ট কার গেলে তালা খুলে অটোমেটিক পদ্ধতিতে গেট খোলা ও লাগানো হয়। তবে মাঝে মধ্যেই বিশেষ আনন্দ দেয়ার জন্য বেষ্টনী গেটের তালা খুলে ভাল্লুকগুলোকে ডাকলে ওরা গেট খোলার জন্য এসে দাঁড়ায়। পরে গেটে খুলে দেয় এবং গাড়ি চলে যাওয়ার পরপরই গেট বন্ধ করে দেয়। প্রাণীদের এরকম আচরণে মুগ্ধ হয়ে পড়ে দর্শনার্থীরা।

পার্কের বন্যপ্রাণী পরিদর্শক সরোয়ার হোসেন বলেন, পার্কের ১২টি ভাল্লুক রয়েছে। এসব গুলোই দেশীয়। কোর সাফারীর ভাল্লুক বেষ্টনীতে ভাল্লুক গুলো বিভিন্ন রকমের কসরত দেখিয়ে সাফারী পার্কে আসা দর্শীনার্থীদের আনন্দ বাড়িয়ে দেয়। যেহেতু ভাল্লুক হিংস্র প্রাণী তাই ভাল্লুক থেকে সতর্ক থাকার জন্য স্টাফদের নির্দেশনা দেয়া হবে।


বিনোদন