দেবীদ্বারে ব্যাংক ডাকাতি, ভোল্ট ভেঙ্গে টাকা লুট

  • প্রকাশিত: May 30, 2019
  • ক্যাটাগরি :

জি এম মাকছুদুর রহমান: কুমিল্লা(দেবীদ্বার) প্রতিনিধি: কুমিল্লার দেবীদ্বারে দূর্ধর্ষ ব্যাংক ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ডাকাতদল ব্যাংকের গ্রীল কেটে ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করে একে একে বিভিন্ন কক্ষের তালা কেটে ব্যাংকের নিরাপত্তা বেষ্টুনিতে রক্ষিত ভোল্ট পর্যন্ত পৌঁছায়। ডাকাত দল ব্যাংকের ভোল্ট ভেঙ্গে প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা লুট করে নিরাপদে নিয়ে যাওয়ারও অভিযোগ পাওয়া যায়। ঘটনাটি ঘটে বুধবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে ভোর পর্যন্ত যে কোন সময়ে,- দেবীদ্বার উপজেলার ধামতী ইউনিয়ন’র ধামতী আলিয়া কামিল মাদ্রাসা কৃষি ব্যাংক শাখায়। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ব্যাংকটি ১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠা হলেও বিগত ২৩ বছরে কোন ধরনের ঝুকি ঝামেলায় পড়তে হয়নি। প্রতিদিনের লেন-দেনও অনেক জেলা সদরের ব্যাংকগুলোর চেয়েও অগ্রসরমান ছিল। কিন্তু ঘটনার দিন কোন নৈশ প্রহরী না থাকায় এদূর্ঘটনা ঘটে। ব্যাংকের ক্যাশিয়ার মোঃ ইব্রাহীম খলিল জানান, গতকাল ব্যাংকের লেনদেন শেষ হওয়ার পর ৫লক্ষ ৮৮হ্জার, ৯৭০টাকা ভোল্টে রেখে যাই। এর আগের দিন অতিরিক্ত টাকা ছিল ৫৫হ্জার টাকা, যা ব্যাংকের ভোল্টে রক্ষিত ছিল।

বাংক ব্যবস্থাপক শরিফুর রহমান বলেন, ঘটনার দিন অজ্ঞাত কারনে নৈশ প্রহরী মিজানুর রহমান ব্যাংকে ছিলেন না। আজ সকাল সাড়ে ৮টায় নৈশ প্রহরী মিজানুর রহমান ব্যাংকের তালা খুলে দেখেন দক্ষিণ পাশের মাদ্রাসা বাউন্ডারীর পাশের ব্যাংক ভবনের জানালার গ্রীল কেটে ভেতরে প্রবেশ করে ভোল্ট থেকে ওই টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

সংবাদ পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, কুমিল্লা উত্তর জেলা পুলিশ সুপার (পদোন্নতি) মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, দেবীদ্বার- ব্রাহ্মণপাড়া সার্কেল’র সিনিয়র এ,এস,পি আমিরুল্লাহ, অফিসার ইনচার্জ ডিবি কুমিল্লা’র মাইনুদ্দিন, দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জহিরুল আনোয়ার, ডিবি’র উপ-পরিদর্শক (এস,আই) সহিদুল ইসলাম, ডিবি’র উপ-পরিদর্শক (এস,আই) ইফতেখার আলম, ডিবি’র উপ-পরিদর্শক(এস,আই) পরিমল, দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস,আই) সাইদুর রহমান, দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস,আই) গোলাম মোরশেদ প্রমূখ পুলিশ কর্মকর্তা ছাড়াও কৃষি ব্যাংক কুমিল্লা জোনাল অফিসের জি.এম পারভীন আক্তার, ডি,জি,এম আক্তারুজ্জামান সহ উর্ধতন কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ দায়িত্ব অবহেলার দায়ে নৈশ প্রহরী মিজানুর রহমান, সাহাব উদ্দিন, এখলাসুর রহমান সহ ৩জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসেন।

এব্যপারে দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জহিরুল আনোয়ার বলেন, ব্যাংটি ছিল একটি নড়বরে ব্যাাংক। তাছাড়া ব্যাংকের নিরাপত্তায় যারা দায়িত্বে ছিল ঘটনার সময় তারা কেউ ছিলেননা। ৩জন গার্ডকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে এসেছি। এব্যপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। অপরাধিদের আইনের আওতার আনার চেষ্টা অব্যাহত আছে।


জাতীয়