কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবি আল্লামা আহমদ শফীর।

  • প্রকাশিত: April 16, 2019
  • ক্যাটাগরি :

মোঃ বাবুল হোসাইন, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ সরকারের কাছে কাদিয়ানী স¤প্রদায়কে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক ও কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকের চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফী। কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জেলা পঞ্চগড় স্টেডিয়াম মাঠে আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়তের উদ্যোগে আয়োজিত খতমে নবুওয়াত মহাসম্মেলন তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি এ আহŸান জানান। আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেন, সরকারের কাছে আবেদন, প্রধানমন্ত্রী যেন কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণা করেন।

যেমন সৌদি আরব, পাকিস্তানসহ আরও অন্যান্য রাষ্ট্রে এদেরকে (কাদিয়ানী) সরকারিভাবে অমুসলিম ঘোষণা করা হয়েছে। আমাদের সারকারকেও আমরা বলব, কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করা হোক। তিনি আরও বলেন, কাদিয়ানীরা মুসলমান নয়। কাদিয়ানীদেরকে যাারা অমুসলিম মনে করে না, তারাও অমুসলিম। এ কথা মনে রাখবেন। বহু শিক্ষিত সমাজ এদেরকে মুসলমান মনে করে। তারা বলে, এরা তো নামাজ কালাম পড়ে, কফের হবে কেন? কাদীয়ানীরা এ জন্য কাফের যে তারা আমাদের নবী মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে শেষ নবী মানে না। সেজন্য তারা কফের।

যারা এদেরকে কাফের বলবে না তারাও কাফের। এ কথাও মনে রাখবেন। এসময় তিনি কাদিয়ানী স¤প্রদায়কে পুনরায় ইসলাম ধর্মে ফিরিয়ে আনার জন্য আলেম-ওলামাদের প্রতি আহŸান জানিয়ে বলেন, আপনারদের সকলের কাছে অনুরোধ, আপনাদের যে সকল ভাইয়েরা টাকা পয়সা পেয়ে কাদিয়ানী হয়ে গেছে, তাদের আবার ইসলাম ধর্মে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করুন। আপনার ভাইয়েরা কাফের হয়ে গেছে, তাদের প্রথম মুসলমান বানানোর চেষ্টা করেন। আল্লামা শফী বলেন, কাদিয়ানীদের মুসলমানের কবরস্থানে দাফন করা যাবে না। এদের টাকা পয়সার দিকে লক্ষ্য করে,তাদের মেয়েকে বিয়ে করা যাবে না।

আপনাদের মেয়েকেও বিয়ে দিতে পারবেন না। এ কথা মনে রাখার চেষ্টা করবেন। প্রসঙ্গত, কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে দেশের ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশ সম্মেলন করার ঘোষণা দেন। এরই অংশ হিসেবে পঞ্চগড় স্টেডিয়াম মাঠে শুরু হয়েছে খতমে নবুওয়াত মহাসম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরাম মধ্যে বিশেষ মেহমান হিসেবে উপস্থিত আছেন, ঢাকা খিলগাঁও চৌরাস্তা মাখজানুল উলুম মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়তের সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা হাফেজ নুরুল ইসলাম, মাওলানা আবদুল হামিদ পীর সাহেব মধুপুর, মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী মাওলানা মনজুরুল ইসলাম আফেন্দী, মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া, মাওলানা আবদুল হক আজাদ, মাওলানা মাহমুদুল হাসান মমতাজী, মাওলানা শুয়াইব ইবরাহীম, মাওলানা ড. আ.স.ম. শোয়াইব আহমদ, মাওলানা ওসমান গণী সালেহী।


ধর্ম