অবৈধ ভাবে মহাসড়কে ফসল শুকানো বন্ধে অভিযান ও সচেনতা বৃদ্ধি

মোঃ বাবুল হোসাইন, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের মহাসড়কে কৃষিপণ্য শুকানোর কারণে পথচারী ও যানবাহনের চলাচল বিঘ্নিত হয়। এতে প্রায়ই ঘটে দুর্ঘটনা। এ অবস্থায় মহাসড়ক চাতাল হিসেবে ব্যবহার বন্ধে তৎপর হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বাংলাবান্ধা-পঞ্চগড় জাতীয় মহাসড়কের উভয় পাশে স্থানীয় কৃষকরা তাদের জমির উৎপাদিত ধান, তিল, মরিচ, খড়, গম ইত্যাদি অবৈধভাবে শুকায়। এতে সড়ক প্রায় অর্ধেকই দখল হয়ে যায়, চলাচলে সমস্যা দেখা দেয়। তেঁতুলিয়া হাইওয়ের থানার এসআই আ. কাদের নেতৃত্বে ওই অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় কৃষকদের সচেতনতামূলক দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়। সড়ক থেকে ফসল অপসারণ করেন এবং নিজ হাতে কৃষকদের ফসল তুলে দেন পুলিশ সদস্যরা।

এ বিষয়ে তেঁতুলিয়া ফায়ার সার্ভিসের ফায়ার ম্যান ওয়াহেদুল ইসলাম জানান, ‘বুধবার সকাল থেকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কৃষকদের অবৈধভাবে ফসল শুকাতে দেওয়া থেকে বিরত থাকতে সচেতন করেন। তাদের ফসল বস্তায় ভরে দিতে সহযোগিতা করা হয়।’ তেঁতুলিয়া হাইওয়ে থানার এসআই আ. কাদের বলেন, ‘কৃষকদের বারবার নিষেধ করার পরও তারা সড়কে তাদের ফসল শুকায়। এতে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়েই চলছে। ফলে এই অভিযান চালানো হয়।’ তেঁতুলিয়া হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এনামুল হক প্রধান ‘জনসাধারণ ও যান চলাচলের সুবিধার্থে এ অভিযান চালানো হয়। এভাবে সড়কে ফসল শুকানোর ফলে সড়কে দুর্ঘটনা বেড়েই চলছে। সবাই সচেতন হলে হয়তো কমে আসবে সড়কে ফসল শুকানো। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


অন্যান্য